Monday, December 31, 2012

Warhol's Self Portrait at the SF MOMA

Recently I visited the San Francisco Museum of Modern Art. The decision to do so was taken on a whim, primarily out of curiosity. I have no experience or knowledge in this domain. I felt attracted by the way this sort of art seems to speak differently to different people; how the art becomes your own story, open for adaptation to the nuances of your personality.

You can hang abstract art in multiple orientations and derive a fresh meaning for that configuration unique to yourself. That concept felt both new and exciting. Often at the MOMA, I would look at a picture for long, make up my mind on what I think of it and then approach the little notes describing the picture, with its history, intent of the artist and other details. I was almost always different (if not wrong) from what these notes said. To me, that was fine. They were irrelevant to what I appreciated about the picture.

Anyways, this particular piece by Warhol, is not really abstract. And yet, the composition invites you to speculate what he is trying to say. I found the half darkened side to this face very very interesting. To me, it said that the artist is very aware that he is not fully aware of a part of himself. Or a part of himself is not available for public consumption. And yet he tries to create a self portrait. I read that he often invited other people to draw him. Hmmm. I wonder how far our self-image is influenced by how other people think of us. Or, indeed, how we imagine they think of us? And what of the patchiness on the left?

Of course, soon, I was just too muddled up and the art work too abstract for my untrained palate. Me and my partner in "artventure", giggled embarrassingly at how completely absurd some of the material appeared to us!

Sunday, December 30, 2012

কে নারী?

লালসা ভরা যে হাথ বুক ছুয়ে গেল,
ওকে ভুলতে লাগেনি সময় |
এর পর জামা যেন আরও ঢিলে পরা হয়,
সেদিকে মন দেওয়া হয়!
এই শেখে ছোটবেলা মেয়েরা সবাই,
রাতে একা হাঁটা চলবেনা লেক-এ,
সুনসান গলি বাদ দিয়ে যেও,
ওতে শয়তান সব বোম্বেটে |
ছেলে যারা বন্ধু, যতই বন্ধু হোক,
এমনিতে নেই কিছু ভয়;
দঙ্গলে মদ খেলে, সরে থাকা ভালো,
কি জানি কখন কি হয় |
কলেজে পড়তে এসে প্রাপ্তি গালাগাল,
আড়াল আবডাল থেকে!
কান পাতা যাচ্ছে না এমনি ভাষার মধু,
দিচ্ছেন শিক্ষিত ভদ্রলোকে!
বাস-এ সিট ছেড়ে দিয়ে উঠে দাঁড়ালো,
লাল চোখ মাস্তান ষন্ডা;
সামনে বসেই বুক দুরুদুরু শুরু,
তার সুনজর যেন আনাকন্ডা !
স্বামী কে প্রনাম করো, ভাই কে ফোঁটা দাও, রাখি দাও
ওরা তোমার রক্ষা করেঙ্গা!
অবলা হওয়াতে লজ্জা কেন মা?
এ তোমার সু-কৃষ্টি দত্ত সংজ্ঞা!

নারীত্ব কে ঢেকে, লুকিয়ে, মেপে,
চলতে শেখায়ে যে সমাজ,
আমানাত নষ্টে, কত তার বিক্ষোভ!
কত তার কান্নার আওয়াজ!
জেনেশুনে কানা, কালা, বোবা হয়ে সটকেছ
অন্য নানা চিন্তায়ে হন্যে!
আজ যেটা হয়ে গেছে, দেয়ালে লেখাই ছিল,
সব্বাই দায়ী এর জন্যে |
শেখাওনি রুখে দাঁড়াতে মেয়েদের,
শিখিয়েছ লজ্জা সেরা তার;
অপূর্ণ রেখেছ তার নারী সত্তাকে,
দুর্ভাগ্য, নারী-পুরুষ দুজনার!
যে মেলামেশা সুন্দর, স্বাভাবিক, প্রাঞ্জল,
তাকে থুতু দিয়ে বানিয়েছ ধিক;
চাপা আগুন এখন ফেটে তো বেরুবেই |
এত সহজে হবেনা সে ঠিক!
পাশাপাশি পুরুষ কে হাঁটতে দিলে,
তবে তো সে চিনবে কে নারী!
কাঁচের পুতুল মান্যি পায় কি?
কি নিয়মের ছিড়ি বলিহারি!

Friday, December 28, 2012

দিশা

জঙ্গলে হয় নানান রকম, ছোট-বড়, সোজা-ব্যাঁকা,
এত কিছুর ভীরে মশাই, যায় কি সঠিক হিসেব রাখা!?
কোনটা কখন ফুটে ওঠে; কোনটার দিন ঘনিয়ে এল..
অলখ্যে কোন পাতার 'পরে, কিসের ছোঁয়া চমক দিল!
যায়না বলা, যুক্তি বৃথাই খোঁজা..
কঠিন ভারী, ঝকমারি, জংলি নিয়ম বোঝা !

মনের ভেতর জঙ্গল-ই তো! পাশাপাশি ভাবনা নানান,
কোনোটা কালো, কোনোটা ভালো, কোনোটা ট্রয়-এর ঘোরার সমান!
সে ঠিক আছে, বেঠিক কেন, সব হিসেব কি মেলানো যায়?
এ অঙ্ক যে বিশেষ জটিল, দু আর দু-এ পাঁচ-ও হয়!

অনেক নজির; যেমন ধর এক সেতারে নানান সুর-ই,
বাজছে দিব্যি! আমার বেলায় চাইছ কেন এক লহরী?
সেতার যেমন, যেমন বাজাও তেমনি বাজে;
আমার গানও, তোমার সুরে সুরেই সাজে|
তবু সাবধান! যদি জড়াও আমার হৃদয় কোমল রসে,
ভেবনা তেমনি পাবে; পেতেও পারো ফেরত ঝাঁঝাল বুকনি রোষে!
কারণ মনের ফলগু নদী; ভিতর দিকে অন্য স্রোতে..
বইছে জীবন; আজকের আপন, কাল পারেই বদলে যেতে!

ভালো লাগার নিয়ম কিছু থাকে কিনা ঠিক জানিনা..
যখন তখন মনের 'পরে খেয়াল চড়ে নানান কিনা!
আমার মনের অদ্ভুতুরে ভালো লাগাযে অবাক হলাম!
দুই উল্টো রকম মানুষ দেখি লাগছে ভালো সমান সমান |
উল্টো রকম দর্শন দুদিক দিয়ে আমায়ে টানে,
কোনটা কখন আঁকড়ে ধরি, নিজেই কি ছাই বুঝি মানে!

কালের হাওয়া ভাঙছে গড়ছে মনটা আমার ইচ্ছে মতন,
একই কথায় পাচ্ছে কখনো হাঁসি কখনো চাপছি রোদন|

এই রং বদলান পৃথিবীতে এক সত্যিই মানব বরং,
তুমি আমার সত্যি হয়ো, তোমাকে মেনে কাটুক জীবন|
কথা ফুরয়ে যেখানটাতে, সেইখানেতে তুমি থেকো |
আহত বুকে চলার পথে আমায়ে তুমি সামলে রেখো |
বিষন্ন সন্ধ্যে গুলয়ে তোমার চোখের আলো দিও..
রাতের শীতে কাঁপন বেলা আমায় তুমি সঙ্গে নিও |
চুঁয়ে পরা বৃষ্টি ধারার সেই মাটির বুকে যেমন গতি..
আমার পাগলছন্ন মনকে দিও তোমার পরশ মধুর খুঁটি|

Tuesday, December 18, 2012

Untimely

His tiny feet wont cross
Her forlorn threshold anymore.
Those innocent eyes wont ask
The endless questions she adored.
That tender voice wont be heard
In her hallways or her bedroom.
Those clothes with the smell of him
Will be stowed away someplace else soon.
His grubby hands wont mess
Her walls and carpets with crayons.
Numbed with unspeakable horror,
She fights for strength to go on.

Midst this heart rending sorrow,
Gun shots hammer away in her ears,
And she struggles with her faith,
With candles and prayers.
But these methods for healing,
Seem pointless, seem absurd;
A moot conversation;
Ignored and unheard.
The punctured body of her baby
Is an image seared on her brain
She still cant believe it
This is a bad dream, she feigns.

I sit and can only wonder
At the mother who has to!
My heart goes out to her...
And what she must do.
What a price has life extracted!
For what conceivable reasons?
Will anything ever be same again?
Whether we change laws or seasons.
How does one start after insanity like this?
What in the world could bring her catharsis?

Friday, December 14, 2012

Infactuation

If he’d only whisper to her
A sweet secret now and then
She’d play it over forever
And live her fairy tale

If he’d only leave her a note or two
Nothings, scribbled on the fly
She’d make legends out of those words
And sail upon her mind's skies

If he’d only touch her softly
A careless brush or twirl
She’d soak in that awareness
Heart a-flutter, toes a-curl!

If he’d only glance her way
And smile when their eyes lock
She’d be his for the asking now
While Cupid’s shining lasts.

Secrets

No one, you said to me, need know.
That was seductive, that was irresistible.
The parasol of comforting anonymity...
Guarding the fire simmering between us
Guarding the sweet nonsense kissed upon my heart
Or spoken silently with a glance
Unmistaken between us,
Incomprehensible to everyone else
You tired, didn’t you?
I looked around for you…
You weren’t there.
Somehow I thought you’d always be…
Seething now, exhausted now, sleeping now.
Time boxed
Regretting life whiled away in trifles and laziness.

Monday, December 10, 2012

Lover, you

You shape the lines of poetry
I write in vain to catch
The ephemeral sweetness
Of life.. that vies to match
the lungful of pipe dreams
my imaginations hatch

Cant fathom this passion you inspire!
And the places in me you touch
I respond with poetry
And hope you'll see as much
Hold my wistful promise fulfilled.
sweet surrender and such

The mystery of you so beautiful
Despite the space that stretch
Between us; For you I reach
Realms beyond to fetch
Fragrant kisses. A timeless note
Upon my heart you etch

%%%%%%%%%%%%
You shape the lines of poetry
I write in vain to catch
The ephemeral sweetness
Of life, that tries to latch
Onto a pocketful of pipe dreams.
And fanciful romances!

Cant fathom this passion you inspire!
And the places in me you touch
I surrender in poetry
And hope you'll see as much
Hold my wistful promise fulfilled.
Thwarting warnings age pronounces.

The mystery of you so beautiful
Despite the space that stretch
Between us; For you I reach
Realms beyond to fetch
A lungful of fragrant kisses.
A mouthful of fresh chances.

As you breathe life into me
Upon my heart you etch
A note of timeless beauty
You fan my eternal lech
For a fistful of synced thoughts
Weaving soulful converses.

Wednesday, November 21, 2012

Looking back from the middle...

After the thirty some years of life on earth, and without an expectation (or even desire) to live beyond seventyish, I think, I am about at the mid-point. Felt like pausing for a moment to reflect upon how far along I've traveled from when this journey started. Even though I've never been explicitly coerced into taking any particular decision, everything so far seems only partly choice, and more an inevitable progression of circumstances. I don't know if I really like that thought. Intellectually, I always champion free will. Or, maybe, only lately in life, I've really begun to appreciate that there is a choice to make. And our actions commit us to some choices whether or not they were conscious. And we live with the consequences.

For example, I studied engineering. It seemed to be the thing to do at the time. Not because I was tremendously inspired by the thought of being an engineer, but more because everybody tried it and I got that specific opportunity, and therefore, culturally, I was programmed to feel like it behooved me to embrace it and make it work.

Make it work, I did. It has not made me unhappy. But there were many things I could have pursued. And they could have made me equally or perhaps more happy. My potential for those other things was not even given a chance. And today, most in my shoes would either not allow themselves to admit that a significant choice such as that decision disappointed them. Because that would question their current sense of happiness. Or, they would just not dare change course, or try anything new, seeing it as too late already. I've seen this theme in many aspects of our lives; the notable other being in relationships.

For me though, the grey in my hair, the hopeless inequality and unfairness of most things in life, makes me want to re-evaluate my stances about a variety of things that I've blindly embraced and bravely battled for so long. I haven't too much longer. And in another couple decades, it will matter to no one whether I quit or I stuck around and for what petty personal cause! Only in my life, I would have another chance to ask myself, was I true to my convictions and answer that I really gave my free will a chance to stretch its legs. Its an important discussion to have with oneself, this time of life, I reckoned.

It occurs to me that we strive for constancy, absolutes, for some odd reason, in everything we do. Society is obsessed with stability. Perhaps in that stance, we betray our very nature. I think this basic imposition is the root cause of a lot of human unhappiness. Nothing lasts forever. We change and our perspectives change. I think playfulness is very central to the human spirit. A lot of different things make up the full spectrum of our personalities and they can sure as heck be contradictory sometimes. I think its important to embrace this dichotomy in oneself, perhaps even cherish it, nurture it and try to leverage it somehow in our lives.

You know, its OK, even this late in life, to get up on a bike and fall. I did. And when I ride today, it is almost as if a pair of wings were granted to me. And its OK to be attracted to other human beings, ones that don't look like you or talk like you and probably treat you like an outsider. Its not some stupid inverted form of racism. Its OK because the diversity of that interaction enriches me as a human. It arouses emotions and curiosities we stopped feeling sometime in our childhoods because we have most folks from our own cultures so figured out in our heads (or so we think). Its OK to let go of God if you cant believe in him any longer. Its OK to laugh at rituals that you once practiced that now feel foolish. Its OK to get your hands burned with whatever foolishness strikes your heart. Its OK to be ridiculed and rejected. Its OK to be wrong and move on. Its OK to feel you're worth way way more than some other odd Tom, Dick or Harry. Self-awareness is key. And sensitivity, the ability to appreciate fine things is not everyone's cup of tea. This set of rules I seem to have made myself aren't easy to live by, you know. Its hard because its a personal set of rules that nobody else can validate for you.. so you're opening yourself up to feeling isolated, estranged, and sometimes insecure.

To wrap up, I feel like my story is in parts inspiring and in parts a depressing account. Its a disillusionment and an enlightenment at the same time. I often wonder why I feel the need to write these things down! Why I need capture what is essentially private? When often words wont do them justice at all. At least not my words. And yet, I desperately want to pour out my heart for you. Without an audience, do we exist? Without a witness, is life worth living? Sometimes I don't care at all.. and sometimes the loneliness of it becomes stifling, unbearable. As the world gets more connected, more accessible, I am getting lonelier, more in tune with the inner me and absolutely at odds with most conventional wisdom. Is this madness setting in? Who knows!


Wednesday, November 14, 2012

Musica

The sound of violin speaks
In a language ancient
To those who've known pain
And I heard it again.
This night...
As the salt of my tears,
Flavored the sweat on my cheeks,
My secret helpless pleasure
Tasted the best ever!
This night..
And the kiss of the wind
Soft now, brutal now,
Tortured my mind,
With a melody undefined.
This night...
You grant me absolution,
beautiful and divine!
And spark this emotion,
Fanning a longing beyond reason..
This night.
My inconsolable sorrow..
Is overwhelmed with incandescent happiness..
As the music caresses me,
And I revel in being alive..
This night...

Saturday, October 20, 2012

বে পথে

জলের পরে খেলা করে হাওয়ার সুর তান,
আকাশ আলোর রুপোলি তে নানান পাখির স্নান !
ওদের পাশেই রাস্তা ধরে সাইকেল এ তে আমি,
কখনো মন ডিঙে চরে ওদের পিছু গামী..
রোজের যাতায়াতে আমার একাকিত্ব কোথায়ে!
সময় কাটে চারদিকের রঙ্গীন সঙ্গতায়ে |
বে পথে পাখির পরেই বেড়াল সংগঠন |
মৌরি ঝারে, পাথর পারে, যখন তখন !
আরো দেখেছি হঠাত হঠাত সাঁপ, খরগোশ,
অনাচ কানাচ প্রানের জোয়ার, নেই কোনো গোরমোষ |
এছাড়া আছেই সাস্থান্বেশী বাবু মেমের দল...
আইপড,হেলমেট,কুকুর,বোতল,বিবিধ সম্বল!
রোজ এটুকু ছুটির স্বাদে ফুরফুরে মোর মন,
চালিয়ে যাচ্ছি দুজনে বাঁচার কথোপকথন |

দুঃস্বপ্ন

খুব ভোরে ঘুম ভেঙে গেছে.
পুরোটা ঘুম মুছে যায়েনি তখনও চোখ থেকে
চাদরটা সরে গেছে, শীত শীত করছে..
কাল রাতে জানলা খুলে শুয়েছিলাম?
তোমার গরম শরীরটা ছুঁতে চাইলাম
হাথরে দেখি বিছানায়ে কেউ নেই!

ওকি! বাদুরের মতন ঝুলছে ঘরের কোনে?
ওটার দাঁত গুলোতে রক্ত মাখা!
কি বিভত্স! কাঠ হয়ে পরে রইলাম.
হাথ পা কিছুতেই নাড়াতে পারছি না.
বুক ধরফর করছে খুব জোরে.
আমাকে কি বেঁধে ফেলা হয়েছে নাকি?

চ্যাট চ্যাট করেছে কিসে? রক্ত? আমার রক্ত?
আমি কি মরে যাচ্ছি?
আমি কি ফুরিয়ে যাচ্ছি?
আমাকে তুমি বাঁচাবে না?
তুমি কি নেই? তুমি কোথায়ে?
ওই বাদুর টাকে তাড়াও!

যাঃ! দুঃস্বপ্ন টা ভেঙে গেল!
কালো কোট লাল টাই ঝুলছে দরজার ওপর!
উফ! কল্পনাশক্তিটা কাজের কাজে লাগলনা কোনদিন!
একটা অদ্ভুত কথা মনে হল...
ত্রিশঙ্কু ঝুলছি তোমাতে আমাতে,
আর ফুরিয়ে যাচ্ছি রোজ!


তুঘলক

বকছি আমি আবলতাবল বলার খেই হারাই,
বকছ তুমি অন্য সুরে সত্যি মিথ্যা নাই |
মাঝে মাঝে মনটা মেলে কোনো এক খানে,
কিন্তু জেনো ওইটুকু ভাই সমাপতনে..
আমার মতন আর কেও নাই, এইটে সত্যি বাক;
আমি আমার নিজের মতন স্বাধের তুঘলক |
কিন্তু ভায়া একটা ব্যাপার বড্ড কষ্ট দেয়,
এক পা এক পা করে আমার সময় বয়ে যায়ে ..
শরীর থেকে যৌবন আর মনের থেকে যোশ ,
পালাবেই আমায়ে ফেলে, এই নিয়ে আপসোস ..
শুন্য মন কেমন ফেলে দীর্ঘ নিশ্বাস ..
কি যে মানে জীবনটার! হারাই বিশ্বাস ..
বিষন্ন এই মনের কোনে আর সবাই বেমানান,
এখানে থাক, আমি, আর আমার আবলতাবল গান !
লেখা চেপে দেব, না ছেপে দেব, বেজায়ে সমশ্যায়ে..
কানে কারো পৌছল কি, কিই বা আসে যায়ে!

Monday, September 03, 2012

Why should all hell not break loose?

Look around. Nature is cruel. Nature is self-centred. At best, you will conclude you dont know what purpose, whoes purpose, nature is designed to serve. It is certainly not designed for known human standards of goodness. Everytime I read about or hear about some new confounding act of cruelty, this hits home with fresh force. Evil is a fact of life and not a biproduct of circumstances as people seem to want to believe!

I keep getting the argument that no child is born evil. Really? Then what about genetic propensities? Recently I heard about a shootout perpetrator who documented "changes happening inside him" for the month before he committed the crimes. It was later diagnosed that the region in his brain that control fear and anger had been feeling pressure from the growth of a tumor in a nearby region over that period of time. I am told that such a diagnosis can help the accused garner an easier sentence in a court of law because he couldn't help himself. The law seems to take the stand that it is a force to influence your free will. As if, we are cautious of our own basic instinct and its potential for evil.

We really have little clue on the so called noise factors that make people turn rogue. As little clue, as to what makes people turn great altruists. And yet, somehow, we are tuned to feel good about acts of true altruism versus what is considered evil. And if an act of kindness comes with personal sacrifice, the more noble the act. Well.. Mother Nature teaches us little of these behaviors anywhere in the history of her evolution. In trying to be this way, we are trying to rise above our nature - an act, one might argue, of questionable wisdom.

Some argue that the greater good is an evolutionary instinct because the greater good is not divorced from your own well-being. However, the greater good has gotten to be a pretty complex concept in today's world. And yet we largely prove ourselves "good". But that is not necessarily rational. Because, we cant see whats good about being good too far in any direction.

I wonder, if this is just a different way of embracing "religion". You do something from a feel good gut that is a function of rituals (laws) and an outdated evolutionary mind set (the greater good). And that seems the path forward to a happy life! It is a scary thought that we need some sort of an attitude to keep ourselves out of mischief.

Thursday, August 16, 2012

Stargazing

You have probably felt lost looking up at an inky black, starlit sky sometime in your life; probably thought about how comically meaningless your chance of a lifetime on this earth is. For me, it is both a humbling and an inspiring feeling. The human race throughout its history and across cultures has obsessed with the sky; catalogued, mapped and segmented it with known shapes forming the various constellations. And that has not diminished its magic any. Despite the seeming endlessness, one can hardly ever get bored looking at the night sky! Something in us responds to its grandeur with speechless awe. Some believe that forces from the heavens shape our very life and fate on this earth. Regardless of belief, I obsess with all types of legends of the skies.

My earliest memory of the night sky has a hero. It is the constellation Orion, also known as the Hunter, or the Kalpurush in my part of the world. Its most recognizable feature is the three stars in a row at the Hunter’s hip that form a perfect belt. It is visible on the night sky throughout the world. Interestingly because of its positioning, this constellation is expected to be recognizable long after every other constellation has been distorted into new formations due to the continual shifting of the earth relative to the stars. Countless times I have tried to capture the glint of the stars and their ethereal twinkle on my camera. But alas! But I am glad in a sense. Glad that this experiential wonder that is the night sky remains entirely experiential for me.

Recently I saw the Saturn with the aid of a sophisticated telescope with an apochromatic lens and refractive design, I was told; more beautiful than the image I had of it in my mind from countless books and glossy magazines. Magnificent with its veil of rings! And right there before me in the sky. I have taken to lying on my back in the dark with a pair of binoculars these days. Someday I'll own a powerful telescope and scope out this vast wonder bequeathed to me. For now I live with the allure of the twinkle.. specially potent in remote corners, far from the light poluted city skies!


Wednesday, August 01, 2012

উড় খেয়াল খুশি

এক ক্ষনিকের পাগলা চোরা ঢেউ
এ সময়ের হিসেব চেয়েও না কেউ..
বিলাসিতার দাম আজ ভাবছিনা
পরে খুজবো জোড়াতালি সান্তনা!

জীবনকে বয়ে বেড়ানোর বোঝা !
গন্ডি মেনে পা ফ্যালা কি সোজা?
মুড়ি মুরকির এক দর হাঁকে যারা,
বুঝবে না এ পাগলামিকে তারা |

ভয় করছে, আবার লাগছে ভালো;
ভরসা দিচ্ছে তোমার চোখের আলো |
ভুল যদি বুঝেই থাকি তাকে,
কাল ভাবব, যা কপালে থাকে!

বন্ধু

স্মৃতির পাতায় ঝাপসা মানুষ হঠাত বড্ড স্পষ্ট,
মিল আছে তবু মিল নেই কোনো, মনের মধ্যে কষ্ট |
মনের কোমল ছবি গুলো চাইছে না এই ধাক্কা,
কই গেল রে চেনা স্বাদের নুডুল চিকেন হাক্কা?
পুরনো ভালো লাগার জের টানাপরেনে নষ্ট,
সেই তুমি, নেই তুমি, বুকের মধ্যে কষ্ট!
সেই আমি, আমিও কি দাঁড়িয়ে এক জায়েগায়ে?
অলিগলি সদর ফেলে আজ অদ্ভুতুরে রাস্তায়ে!
সবকিছু জোরা শুধু অবিশ্বাস কেন?
হাথ বাড়ালেই বন্ধু মেলে না আর যেন |
তাই কি পুরান মুখটা দেখে মনটা করে আনচান?
খিল্লি খেউর গালিগালাজ এক গেলাসের পিছটান?
বুকের মধ্যে একলা সবাই জমজমাটির সন্ধ্যে,
হাথ এগোলেও, পোর খাওয়া মন ডরায়ে অসাছন্দে|

Tuesday, July 17, 2012

চুপকথা

তোমার চোখে চুপকথা ভুলব কেমন করে?
বলনি বলে কি মিথ্যে যা আমি নিজেই নিয়েছি পড়ে?
মানুষের এত কথার ভীরেও কত ফাঁক থেকে যায়ে!
মূক ব্যথা নিয়ে একাকী সে ঘোরে সরব সঙ্গতায়ে |
আমাকে ফাঁকি পারবে না দিতে মুখ বুজে থাকলেও,
তোমার মনের খবর রেখেছি তোমার অলক্ষেও!

যখন কথার পেছনে ছিলনা অন্য কথার গোল,
তখন সহজে বলে যেতে কত আবলতাবল!
আর আজ কিছুতেই কথা সরে না, চুপটি করে চাও;
নিজের মুখোমুখি পর যখন কোথায়ে পালাও?
হলনা তো হিসেব মতন? মন সহজাত বেয়ারা!
এখন আগলে বেড়াও নিভৃতে, নিষিদ্ধ সুখ ফোয়ারা |

On the road

Stay the course, you say
And I wonder what you mean, more, everyday
Words come back to me like waves on the sea shore
Beaten words, from the beaten track,
Old arguments, sam-o wisdom, quack quack.
Nothing is new under the sun.
As I crawl on, I wish I could run!
With this restless spirit of abandon..
Thats gnaws away at me..

And happiness is so… ephemeral.
Puff, it goes,
On the wings of a late Sunday breeze;
And I am left alone in the dark corner..
Waiting, with dumb unease.
Waiting, for a fit of inspiration, to touch my heart..
As thoughts chase each other around,
In my head they're lost and found,
Again and again and again.

Feelings are brutal, Intelligence useless!
In a world which is more purposeless,
Than you can even imagine.
That you can dare to even imagine.
I envy you that amble along without a clue,
And none the worse for it!

সোজা অঙ্ক নয়

তুমি ভাবছ তুমি খুশি হতে চাও?
হয়্ত চাও; কিম্বা হয়্ত চাও না!
ভেতরের একটা মন তোমাকে কিন্তু নাচাচ্ছে!
তুমি আনন্দ খুঁজছ! সে দুঃখ আগলে বেড়াচ্ছে!
আর মন খারাপের সময়ে?
সে হঠাত হঠাত ইয়ার্কি দিয়ে যাচ্ছে!
ভেবে দেখো...
তোমাকে একেক সময় একেক রকম বোঝায়ে সে...
তুমি ভাবছ এক.. চোখ বুজে একরকমটা চাইছ..
হঠাত অকারণ মেঘ জমে উঠছে মনটায়ে!
হঠাত সব আয়োজন ব্যর্থ মনে হয়!
আর যেদিন অশ্রুক্লান্ত চোখ অভিমানে গম্ভীর, চুপচাপ
কোথ্হেকে হাঁসি ফুটে ওঠে বলত!
ওই ভেতরকার আপনার থেকে সাবধান.
কি হাতিয়ার আছে?
জীবনের নানান অভিজ্ঞাতা মনটাকে ভেঙ্গেছে গড়েছে..
সে মনের ওঠাপড়া খুব সোজা হবে ভাবছ কি করে!

Tuesday, May 15, 2012

Wish you love

I love you, for me.
It does not matter if you dont agree with me,
About loving you.
I will always love you.

So many things have I learnt because of you,
About me.
So many ways have I envisioned you further,
Than who you are, or ever mean to be...
In here, no one can touch you.
In here, you are a part of me.
In here, you couldn't break my heart.
In here, it does not matter if you dont agree with me,
About loving you.

So many times have I cried for you and fought you too,
But I love that about you.
So many times have you raged like an addiction in my blood..
But thats alright, too.
In here, we belong together.
In here, you are a part of me.
In here, I am yours forever.
In here, it does not matter if you dont agree with me,
About loving you.

So many times when I smelled you on the sheets,
You brought me home.
So many times from lonely corners of my heart,
I can see you even if you dont.
In here, I can live on that.
In here, you are a part of me.
In here, you are always there.
In here, it does not matter if you dont agree with me,
About loving you.

I wish you love, too

Saturday, May 12, 2012

আমি?

কালকের আমি আর আজকের আমি,
মুখোমুখি পুরনো লেখায়ে |
চিনতে পারছিনা আগেকার নিজেকে,
তুমি পারো চিনতে আমায়ে?
কাল যাতে বিশ্বাস, আজ তাতে কৌতুক!
"আমি" মানে কি দাঁড়ায়ে?
নিজেকে চেনাটা খুব সোজা কাজ নয়,
বার বার ভুল হয়ে যায়ে!

মানুষ মিছিমিছি তার ভূত, ভবিষ্যত,
ভেবে ভেবে জীবন কাটায়ে..
বছর দশ, খুব বেশি দিন নয় তো,
তারই মধ্যে চোখ বদলায়ে!
সমঝে চলেও, জীবনের অর্ধেক কেটে গেল,
কত মানেহীন অভিজ্ঞতায়ে!
অন্তত আজ, তো তাই মনে হয়!

ভাবি কেন মন খুলে অসতর্কতা,
আজও দিতে পারিনা তোমায়ে |
ফেলে আসা বাঁকে কত সম্ভবনা,
মোনালিসা হেঁসে তাকায়ে..
পারব কি নিজেকে কোনোদিন ছেড়ে দিতে,
অপরিনামদর্শিতায়ে ?

Thursday, April 05, 2012

হঠাত

এক সকাল মন কেমন করা,
নিয়ে লিখতে বসা.
আশ এই যে ছন্দের খোঁজে,
বেবাক যাব মজে,
তখন আমার স্বাদ করে কাঁদা.
স্বাদ করে করুন সুর বাঁধা.

দুঃখ কিসে হয়?
কি জানি হাওয়ায়ে বুঝি কথা কয়ে!
দিব্যি সকাল হঠাত ব্যথাতুর.
হুহু করে শুন্য মনের আতুর.

কিছুই না করা.
মনের মধ্যে উথাল পাথাল চরা.
আসলে ভালই বোধায়ে লাগে!
এই নিয়ে থাকতে কিছুটা ক্ষণ..
আমি আর আমার পাগল মন.

দিন গড়িয়ে যায়ে.
বাঁচি কিসের অপেক্ষায়ে.
ভুলব সকল পুরানো,
নতুন নয়ন ভুলানো,
এল কোথায়ে আমার দরজায়ে!
কেন এমন হয়!

Tuesday, March 27, 2012

List-ই মাত

List-ই তে tick মারা,
বড় সুখ সে!
যে না করেছ,
ঠকেছ হে.

Just ছুটোছুটি দিয়ে,
নামিয়ে ফেলো .
কিছু পেলে কিনা আদপেও,
কি এসে গেল !

করেছ এটা সেটা?
গেছ হেথা সেথা?
সব খানে tick মারা?!
জিও রে ব্যাটা !

Eiffel Tower
থেকে মুড়কি মোয়া;
বদ হজম করে,
ছাড় গর্বে ধোঁয়া.

যুগের হাওয়ার সাথে,
দৌঁড়তে শেখ.
ওরে ভাবুকের দল
উন্নতি make!

সামনে যাই থাক,
বলবে Yes I can.
সহজেই হয়ে যাবে,
Complete Man!

যদি পেছনে পড়ে যাও,
কবিতা লিখো.
হাজার প্রশ্ন নিয়ে,
আরও পেছনে হেঁট.

Saturday, March 24, 2012

বৃষ্টি

সকাল থেকে মল্হার, আমার কানে বাজছে,
বৃষ্টি রসে ভেজা এই দিনটায়ে..
শীতের মধ্যে উষ্ণ, ধুসর-এ রক্তিম,
অকারণ ভালো লাগা, খেলা করে যায়ে.

পাতার 'পরে হালকা, কিম্বা সজোর জলাঘাত,
বুকের 'পরে তীক্ষ্ণ সমান দুয়ে;
টাপুর টুপুর, ছুপ ছুপ, রিম ঝিম, ঝম ঝম,
ঝরে আকাশ থেকে আমার নয়ন চুঁয়ে.

সোঁদা গন্ধের ভেতর অন্য রকম গন্ধ,
ভুলে যাওয়া ব্যথার ছেঁড়া স্মৃতি..
উদাস হাওয়া জিগায়ে, আছিস পড়ে ক্যানে?
বুকের মধ্যে উটকো করুন গীতি!

চমকে দিয়ে বিদ্যুত, আগুন ধরায়ে প্রাণে,
বলে উল্লাস! তুলে পূর্ণ পাত্র,
ঝলসানো সেই আলোতে, অবাক দেখি তোমাকে,
সেই কবেকার চেহারায়ে, এই মাত্র !

নেমে আসে অন্ধকার.
নিরবছিন্ন ধরনী আর আকাশের প্রেম লহরী.
মল্হার মদে মৌতাত, সুমধুর এই রাত,
ঘুম কুঁড়ি, গেছে চুরি, লেপ মুড়ি!

Sunday, March 11, 2012

হোরির প্রসাদ

আজ হোরি খেলার দিন.
উষ্ণ রোদ সেজেছে রঙিন.
আবির পিচকারী দিয়ে খেলা
জমে গেছে, সরগরম এ বেলা.

তুমি বলছ, রসের থালি হাতে,
বসন্তের গান ধরগো সাথে...
জীবন-যৌবনের যে গান,
হোরির রঙে রাঙিয়ে মনপ্রাণ.

আমি বলছি, বড় শক্ত সে তো
বিবিধের মাঝে মিলনের এই ব্রত.
বড় শক্ত জীবনের উপাসনা
সত্যিকার ঐক্যের বাঁধ মানা.

এক রং মেখে এক হওয়া কি যায়ে?!
বরং, এই গুলালে ঝাপসা হাওয়ায়ে,
খুঁজি একটু আড়াল?
মিষ্টি ঠান্ডাই এর নেশায়ে,
খুঁজি একটু বিস্মৃতি?
রঙের অজুহাতে,
খুঁজি একমুঠো যৌবন?
তোমার আমার একান্তের হোরি..

Tuesday, March 06, 2012

Reunions

Friends from my past, I really love you. And wish to remember the best of you. Over time, we usually retain only the good memories and this happens naturally. However, by aligning with the modern compulsion of staying constantly (even overbearingly) in touch, I feel like we might be messing things up. Somehow I have grown wary of meeting up with lost friends. While a wonderful wonderful thing for the most part, it has sometimes been a bad thing.. even when what we have shared together in the past was all super nice.

Memories are private impressions. Everybody does not remember the same thing in the same way, to the same degree of detail, or, in the same light. And when, eons late, you or your friend recount something one of you cannot remember, cannot connect with, the very sense of shared experience that drew you together can suddenly feel phony. You sit back and think: it’s the same face; just thicker and more lined. But every time you try to find the old face in this new one, the lines stand out evermore.

The fact is, it’s not just their face, it’s your eyes too. You have changed. You may not be ready to respond to what this person is offering right now. And the quaint rosiness of your memory gets tarnished by the garish experience of a catch-up lunch that you wish you hadn’t come to. Your precious recollections get sort of written over with the new impressions of your friend that you cannot filter out. And the sense of romance ebbs away. The fact is, if you haven’t grown old together, you probably had reason to leave each other behind. Perhaps it’s more beautiful to think of the past and sigh a contented sigh or even a wistful sigh, than, to drink to it together and emit an ugly belch.

And so, I wanted to write this little piece against reunions. This is not criticism for how far some friends and I have moved apart in time and space and even our world views. That was inevitable. That does not diminish the shared happiness from our time together. This is really more about how to best cherish and preserve and draw comfort from those golden things we call memories. Particularly how to protect them from this onslaught of connectivity overdrive. And to be clear, I love old pictures and commenting thereon and recounting and reliving of things.. as far as writing is concerned. Its just that voice and body cues mess with our perceptions in a way we cant control. And so, meeting someone you used to know, may not always be as rewarding as you had expected.

Friday, January 13, 2012

কিচ্ছু করার নেই

কিচ্ছু করার নেই,
তুমি ইস্তফা দিয়ে দাও.
কিচ্ছু করার নেই,
বরং পালিয়ে যাও.

কিচ্ছু করার নেই,
তোমাকে তো মারবেই.
কিচ্ছু করার নেই,
জোর করে কাড়বেই.

কিচ্ছু করার নেই,
ভুল ঠিক যাই হও.
কিচ্ছু করার নেই,
মুখ বুজে সব সও.

কিছু তো একটা করো?
এইভাবে চলে না .
মাথা তুলে বাঁচ নয়,
মরে বেঁচে যাও না?

রাত

হঠাত ঘুম ভেঙ্গে গেছে, নিশুত রাত তখন,
ভেড়া গোনা, তারা গোনা, এই চলবে এখন.
জোর করে চোখ বুজে ঘুমিয়ে পড়তে চাই..
মৌনী যেন গিলতে আসে, কোথায়ে পালাই!

আজ বড়ি নয়, চাই রুপকথা, চাই ঘুমের পরী,
একটু করে মনের রাশ ছাড়তে চেষ্টা করি.
রাতের গন্ধ, রাতের স্বাধ, আসতে আসতে পাই,
আর গীট পাকানো মনের দড়ির জট-টা ছাড়াই.

চাঁদির চাদর টানা কালো রাতের প্রিয়া,
বেশ, নাহয় তোমার সাথেই আজ পরকিয়া.
তোমার প্রাণে এত কথা কে জানত বলো!
মধুর অন্ধকার মেখে আবার এস কালও.

Followers